ঘরে বসে দ্রুত টাইপিং শেখার কৌশল

বর্তমান যুগ হলো কম্পিউটারের যুগ, তাই যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে কম্পিউটারে পারদর্শী হওয়া খুবই প্রয়োজন। কম্পিউটারে পারদর্শী হতে গেলে প্রথমেই প্রয়োজন এর ইনপুট ডিভাইস চালনায় নিজেকে পারদর্শী করা।

কীবোর্ড হলো কম্পিউটারের এক অন্যতম ইনপুট ডিভাইস যেটা ছাড়া কম্পিউটার চালানো একপ্রকার অসম্ভব। কিবোর্ডের মাধ্যমে যেকোনো ডেটা ইনপুটের জন্য আপনার টাইপিং স্কিল থাকা প্রয়োজন।

টাইপিং শেখা কেন প্রয়োজন ?
  • বর্তমানে সরকারি বা বেসরকারি যেকোনো প্রতিষ্ঠানেই ছোট থেকে বড়ো প্রায় সব কাজের জন্যই কম্পিউটার প্রয়োজন। তাই এইসব প্রতিষ্ঠানে কাজে নিযুক্ত হতে চাইলে আপনার টাইপিং স্কিল থাকা একান্ত প্রয়োজন।
  • বর্তমানে বিভিন্ন চাকরির পরীক্ষায় টাইপিং টেস্ট থাকে, সেটা পাস্ করতে আপনাকে টাইপিং জানতেই হবে।
  • টাইপিং ভালো জানা থাকলে আপনি চাকরি ছাড়াও বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং সাইটে কাজ করে টাকা উপার্জন করতে পারবেন।
কিভাবে অনলাইনে টাইপিং শিখবো : –

অনলাইনে টাইপিং শেখার জন্য আপনাকে Typing.com এই ওয়েবসাইটে যেতে হবে।

এরপর মেনু থেকে Test অপশনে ক্লিক করলে আপনাদের সামনে একটি নতুন উইন্ডো খুলবে যেখানে অনেক কয়টি টেস্ট অপশন দেওয়া থাকবে। আপনি আপনার পছন্দ মতন সময়ের একটি টেস্ট দিতে পারেন।

এরপর টেস্ট শেষ হলে আপনি দেখতে পারবেন আপনার বর্তমান টাইপিং স্পিড কত রয়েছে।

যদি আপনার স্পিড কম থাকে এবং আপনি তা বাড়াতে চান তাহলে, সাইটের হোমপেজে গিয়ে Lessons অপশনে ক্লিক করে আপনি শেখা শুরু করতে পারবেন। এখানে বিভিন্ন পদ্ধতিতে বা লেসনের মাধ্যমে আপনার টাইপিং স্কিল ডেভলপ হবে। মনে রাখতে হবে টাইপিং সবসময় কিবোর্ডের দিকে না তাকিয়ে করা উচিত।

টাইপিং একদিনে শেখার বিষয় না, আর একবার শিখে যাওয়ার পরেও যদি নিয়মিত অনুশীলন না করা হয় সেক্ষেত্রে টাইপিং স্পিড কমে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে। উল্লেখিত ওয়েবসাইটে নিয়মিত বিভিন্ন লেসনের মাধ্যমে আপনি টাইপিং শিখতে ও অনুশীলন করতে পারবেন। নিয়মিত আপনার স্কিল কতটা উন্নত হচ্ছে তার হিসেবে রাখার জন্য ওয়েবসাইটে একটি একাউন্ট বানিয়ে নেবেন। ওয়েবসাইটটিতে আপনি ফ্রিতে একাউন্ট বানাতে পারবেন।

তথ্য সংগৃহীতঃ https://preronajibon.com/learn-typing-online/

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top