এইচএসসির ফরম পূরণ: কোন বিভাগে কত ফি

চলতি বছরের এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ গত বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) থেকে শুরু হয়েছে। ২৫ আগস্ট পর্যন্ত চলবে। ফরম পূরণ ও পরীক্ষার ফি অনলাইনে পরিশোধ করতে হচ্ছে। এবার প্রথমবারের মতো সোনালী ই-সেবা নামে সফটওয়্যার আ্যপের মাধ্যমে ঘরে বসেই ফরম পূরণ কার্যক্রম চলছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধানদের বলা হয়েছে, কোনো অবস্থায় পরীক্ষার্থী বা তার অভিভাবক প্রতিষ্ঠানে সশরীর আসতে বলা যাবে না। প্রয়োজনে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা যাবে।

২০২১ সালে এইচএসসি পরীক্ষার জন্য কোনো নির্বাচনী পরীক্ষা হচ্ছে না। তাই – সংক্রান্ত কোনো ফি আদায় করা যাবে না। ৩০ আগস্ট পর্যন্ত ফরম পূরণের নির্দেশাবলি মেনে এসএমএস পাওয়া শিক্ষার্থীরা ফি পরিশোধ করতে পারবে। কোনো কারিগরি ত্রুটির কারণে কোনো শিক্ষার্থী এসএমএস না পেলে বোর্ডের ওয়েবসাইটে Student panel থেকে তার ফরম পূরণের Status যেকোনো সময় দেখতে পারবে।

২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ফি নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার। বিজ্ঞান বিভাগে ১ হাজার ১৬০ টাকা, মানবিক ও ব্যবসা শিক্ষা বিভাগে ১ হাজার ৭০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, কোনো অবস্থায় নির্ধারিত ফির বাইরে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করা যাবে না। এ–সংক্রান্ত কোনো তথ্য দৃষ্টিগোচর হলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের ফরম পূরণ প্যানেল বন্ধ করাসহ প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কেবল বৈধ রেজিস্ট্রেশন করা শিক্ষার্থীরা আবেদন ফরম পূরণ করতে পারবে। কোনো পরীক্ষার্থী তার রেজিস্ট্রেশন ছাড়া কোনো বিষয় বা বিষয়গুলোয় পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করলে সেই বিষয়ের পরীক্ষা বাতিল করা হবে। নিয়মিত-অনিয়মিত বা আংশিক বিষয়ে অকৃতকার্য অথবা আবশ্যিক বিষয়ে অকৃতকার্য, প্রাইভেট পরীক্ষার্থী, জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার্থী অর্থাৎ সব ধরনের পরীক্ষার্থীকে ফরম পূরণ করতে হবে।

ফরম পূরণ ছাড়া পরীক্ষার্থীর ফলাফল প্রকাশের সুযোগ নেই উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রতিষ্ঠানের নির্বাচিত পরীক্ষার্থীরাই ফরম পূরণের জন্য ফি জমা দিতে পারবে। পরীক্ষার্থী বা তার অভিভাবক এ বছর চালু হওয়া সোনালী ই-সেবা নগদ, বিকাশ, রকেট, ইউ-পে, সোনালী ই ওয়ালেটের মাধ্যমে সুবিধা পাবে।

এর আগে গত ১৫ জুলাই অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছিলেন, করোনা পরিস্থিতি কমে এলে সংক্ষিপ্ত সিলেবাস ও সংক্ষিপ্ত সময়ের মধ্যে নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে এসএসসি এবং ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। এসএসসি ও এইচএসসিতে মূল্যায়ন হবে গ্রুপভিত্তিক। বাংলা, ইংরেজির মতো আবশ্যিক বিষয়ের মূল্যায়ন হবে না। অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে শেষ করা হবে সংক্ষিপ্ত সিলেবাস। যদি পরীক্ষা না নিতে পারি, তাহলে অ্যাসাইনমেন্ট এবং সাবজেক্ট ম্যাপিংয়ের মাধ্যমে ফল প্রকাশ করা হবে। পরীক্ষার সময় কমবে সংবাদ সম্মেলনে ওই দিন শিক্ষামন্ত্রী জানান, এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে ২৪-৩০টি অ্যাসাইনমেন্টের ভিত্তিতে তিন ঘণ্টার পরীক্ষা দেড় ঘণ্টায় হবে। আর ১০০ নম্বরের পরীক্ষা হবে ৫০ নম্বরে। প্রতিবছরে যেমন প্রশ্ন হয়, এবারও তেমন প্রশ্নই থাকবে। কিন্তু চয়েস অনেক বেশি থাকবে। এসএসসির সাবজেক্ট ম্যাপিং জেএসসির বিষয়গুলোর ওপর নির্ভর করে মূল্যায়ন হবে।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চে। করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। দফায় দফায় সেই ছুটি বাড়িয়ে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত করা হয়েছে।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top